একটি সূরা লেখো!

                                          -জহুরুল ইসালাম
                                      পোরশা, নওগাঁ

দুঃসাহস বড় দেখেছি তোমার, অনেক সাহসী তুমি

ক্ষমতার দাপটে চুপসিয়ে রাখো, দাবিয়ে রাখো সবি।

সবাই তোমাকে ভয় করে চলে, সাহস বড়ই বেশি

মসনদে বসে করছ তুমি ক্ষমতার রেষারেষি।

দুঃসাহস তোমার বড়ই বেশি, পাল্টাতে চাও কুরআনের বাণী

উপর থেকে তামাশা কি তোমার দেখবেন তিনি?

কে তুমি সাহসী বুদ্ধিমান কতো, কুরআনকে চাও পাল্টাতে

ছোট্ট একটি সেনার আঘাতে হানল ফাটল মসনদে।

কে বীর তুমি রোধিতে চাও পর্দা, হিজাব, পাঞ্জাবি?

কে তুমি সংস্কারক পাল্টাতে চাও মুসলিমের রীতিনীতি?

নারী-পুরুষ সবার পর্দায় দাও না কেন ভয়-ভীতি?

কে তুমি বলো ক্ষমতাধর বিশ্ব চাও হাতের মুঠে

অসহায়দের দাবাতে চাও, চেপে রেখে পায়ের বুটে?

কে তুমি বলো প্রভু হতে চাও কারুন, নব ফেরাঊন

বিশ্ব যখন শাসিতে চাও, মসনদে তোমার আগুন!

কে তুমি বলো শক্তিশালী, শক্তি আছে কত তোমার?

মেরে ফেলো তুমি মুসলিম আর ভেঙে ফেলো ঘর প্রার্থনার!

কে তুমি বলো খেতে চাও সব, খাওনা তুমি যত পার

বাদুড় খেয়ে করোনার ভয়ে গদি থেকে কেন দৌঁড় মার?

তুচ্ছ সৃষ্টি ভাইরাস একটি ক্ষুদ্র অতি ক্ষুদ্র

তার ভয়ে শুধু কেন জেগে আছ, বিশ্ব আছে অতন্দ্র?

ছোট্ট একটি সেনার আঘাতে অচল যান্ত্রিক প্রভু

যে হলো এই সেনা কমান্ডার জানো কি তারে কভু?

তার কুরআনের ব্যাপারে যদি সন্দেহ তোমার থাকে

এ রকম নির্ভুল একটি সূরা লিখে দেখাও আগে!