কুরআনের প্যালিন্ড্রোম

*-মাহমূদুর রহমান

সপ্তম শ্রেনী, আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ

বীরহাটাব-হাটাব, রুপগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ।

রাজিব ঢাকার একটি সরকারি প্রতিষ্ঠানে পড়ালেখা করে। ঢাকার এই আবদ্ধ পরিবেশ তার কাছে একদম বিরক্তিকর লাগে। তাই স্কুল ছুটি পেলে গ্রামে চলে যায়। হয়তো তার নিজ গ্রামের বাড়ীতে না হলে তার খালার বাড়ীতে। এই মাসের ৮ ও ৯ তারিখে তাদের স্কুল বন্ধ। তাই আগে থেকেই প্ল্যান করে রেখেছে এই বন্ধে খালার বাসা থেকে ঘুরে আসবে। কারণ খালার বাসায় গেলে তার খালাতো ভাই আবিদের কাছ থেকে অনেক কিছু জানা হয়।

আবিদের বাসা নারায়ণগঞ্জ থানাধীন হাটাব গ্রামে। সেখানেই সে একটি নাম করা ইসলামী প্রতিষ্ঠানে পড়ালেখা করে। ৮ তারিখ বুধবার আছরের পরে আবিদ বাড়ীতে এসে দেখে, রাজিব তাদের বাসায়। রাজিব আবিদকে দেখে দৌঁড়ে এসে বলে, ভাইয়া কেমন আছো?

-আলহামদুলিল্লাহ, ভালো। কিন্তু তোমাকে না বলছিলাম দেখা হলে প্রথমে সালাম দিতে হবে, আবিদ বলল।

-ওহ! ভাইয়া একেবারে ভুলেই গেছিলাম। Sorry! আস-সালামু আলাইকুম।

-ওয়া আলাইকুমুস সালাম ওয়া রহমাতুল্লাহ। এরপরে যেন আর না ভুলে যাও, ঠিক আছে?

-আচ্ছা ভাইয়া। ভাইয়া আগেরবার যখন এসেছিলাম, তখন কিন্তু গল্প বলবে বলেছিলে, কিন্তু বলোনি। এবার কিন্তু বলতে হবে।

রাজিব জানে আবিদের কাছ থেকে কখনো এমন কোনো গল্প শোনা যায় না, যাতে শিক্ষণীয় বিষয় থাকে না; প্রতিটা গল্পের মধ্যে শিক্ষণীয় বিষয় থাকে আর কুরআন অথবা হাদীছের কিছু অংশ থাকে।

-আচ্ছা বলব। তবে আজ না; কাল। চলো, আজ বরং আমরা শীতলক্ষ্মা নদীর পাশ থেকে ঘুরে আসি।

বুধবার বিকালে ঘোরাফেরা করে মাগরিবের পরে আবিদ মাদরাসায় চলে গেল। আসলো বৃহস্পতিবার মাগরিবের ৩০ মিনিট আগে। আসার সাথে সাথেই রাজিব সালাম দিয়ে গল্প শোনার আবদার জানালো। ওয়া আলাইকুমুস সালাম ওয়া রহমাতুল্লাহ। তুমিতো দেখছি কিছুতেই গল্প না শুনে ছাড়বে না। বলো, কী সম্পর্কে গল্প শুনতে চাও? আবিদ বলল।

-তুমি তোমার ইচ্ছা মতো বলো ভাইয়া।

-আচ্ছা তাহলে আজকের দিন সম্পর্কে বলি।

-আজকের দিন সম্পর্কে! আজকে বিশেষ কিছু ঘটেছে নাকি?

-না, বিশেষ কিছু ঘটেনি। তবে এমন কিছু ঘটেছে, যা সারা বিশ্বেই ঘটেছে।

-মানে?

-আচ্ছা বলো তো আজকে কত তারিখ?

-আজকে ৯ তারিখ।

-পুরোটা বলো।

-আজকে ৯    ১০   ২০১৯।

-তুমি একটু বসো, আমি ঘর থেকে আসছি।

-আবিদ খুব তাড়াতাড়ি ঘরে গেল ও দুই মিনিট পরে হাতে একটি খাতা ও একটি কলম নিয়ে আসলো।

-আজকের তারিখটা যদি আমরা খাতার লিখি তাহলে ৯ ১০ ২০১৯ এরকম হবে, তাই না? আবিদ খাতাটা বাড়িয়ে দিল রাজিবের দিকে।

-হুম— মাথা নাড়িয়ে সম্মতি দিল রাজিব।

-তাহলে এটাকে উল্টো করে লিখোতো। মানে শেষের দিক থেকে লিখো।

-৯ ১০ ২০১৯

-এবার একটু খেয়াল করে দেখো, যেদিক থেকেই লিখ না কেন এরকমই কিন্তু হচ্ছে। আর আজ সব জায়গায়তো ৯ তারিখ।

-তাইতো এটাতো খেয়াল করিনি, রাজিব বলল।

-এটাকে বলে প্যালিন্ড্রোম (Palindrome)। ইংরেজিতে বেশ কিছু শব্দ আছে যা এরকম। যেমন- Race car, Madam, Wow ইত্যাদি। বাংলাতেও কিন্তু এরকম শব্দ আছে। যেমন- নবীন, মলম, রমাকান্ত কামার ইত্যাদি। আচ্ছা রাজিব তুমি কি জানো কুরআনেও একটি আয়াত এরকম আছে?

-নাতো ভাইয়া এরকম তো কখনো শুনিনি।

-তাহলে শোন আল্লাহ তা‘আলা পবিত্র কুরআনের সূরা মুদ্দাছ্ছিরের তিন নাম্বার আয়াতে বলেছেন, وَرَبَّكَ فَكَبِّرْ অর্থাৎ ‘এবং তোমার রবের শ্রেষ্ঠত্ব ঘোষণা কর’। و এর অর্থ এবং। আমরা যদি و টা রেখে শুধুرَبَّكَ فَكَبِّرْ  বলি, তাহলে অর্থ হবে ‘তোমার রবের শ্রেষ্ঠত্ব ঘোষণা কর’। আর এখানে অক্ষরগুলো হচ্ছে, رب ب ك ف ك ب ب ر এবার দেখ যেদিক থেকেই তুমি পড়বে একই কিন্তু হবে। খাতায় বাস্তবে দেখিয়ে দিল আবিদ।

-সুবহানাল্লাহ! কুরআন কত বড় মিরাকল। কত বড় সাহিত্য। এতে তো সবই আছে। আমরা কখনো চিন্তুা করি না। নিজের অজান্তেই চিৎকার দিয়ে বলে উঠল রাজিব।

মুআয্যিনের সুমধুর কণ্ঠে আযানের ধ্বনি ভেসে আসছে, ‘হাইয়্যা আলাছ ছালাহ, হাইয়্যা আলাল ফালাহ’।

আবিদ ও রাজিব মসজিদে গিয়ে ছালাতে দাঁড়ালো। ইমাম ছাহেবের মায়াবী কণ্ঠে ভেসে আসছে কালামে ইলাহী,

وَمَا كُنْتَ تَتْلُو مِنْ قَبْلِهِ مِنْ كِتَابٍ وَلَا تَخُطُّهُ بِيَمِينِكَ إِذًا لَارْتَابَ الْمُبْطِلُونَ – بَلْ هُوَ آيَاتٌ بَيِّنَاتٌ فِي صُدُورِ الَّذِينَ أُوتُوا الْعِلْمَ وَمَا يَجْحَدُ بِآيَاتِنَا إِلَّا الظَّالِمُونَ.

‘তুমিতো এর পূর্বে কোনো কিতাব পাঠ করনি এবং স্বহস্তে কোনো দিন কিতাব লিখনি যে, মিথ্যাবাদীরা সন্দেহ পোষণ করবে। বস্তুত যাদেরকে জ্ঞান দেয়া হয়েছে, তাদের অন্তরে এটা স্পষ্ট নিদর্শন। যালিমরা ব্যতীত কেউ আমার নিদর্শন অস্বীকার করে না’ (আনকাবূত, ২৯/৪৮-৪৯)

3 মন্তব্য