জামি‘আহ সংবাদ

ইসলামী সম্মেলন ২০২০

আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, রাজশাহী, ১৩ ও ১৪ ফেব্রুয়ারি, বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার : আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ রাজশাহী কর্তৃক আয়োজিত দু’দিনব্যাপী ইসলামী সম্মেলন ২০২০ বিভাগীয় শহর রাজশাহীর পবা থানার অন্তর্গত ডাঙ্গীপাড়া, ‘আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ’ ময়দানে সফলভাবে অনুষ্ঠিত হয়। ফালিল্লা-হিল হামদ। শায়খ আব্দুর রাযযাক বিন ইউসুফ-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ৪র্থ বার্ষিক সম্মেলনে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বহু মানুষ উপস্থিত হন। ঢাকা, গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ, কুমিল্লা, ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল, সিরাজগঞ্জ, বগুড়া, গাইবান্ধা, দিনাজপুর, রংপুর, রাজশাহী, নওগাঁ, নাটোর ও চাঁপাইনবাবগঞ্জসহ বিভিন্ন জেলা থেকে ভাড়াকৃত বাসসহ বিভিন্ন মাধ্যমে তারা সম্মেলনে আসেন।

১ম দিন বাদ আছর অর্থসহ পবিত্র কুরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে সম্মেলনের কার্যক্রম শুরু হয়। কুরআন তেলাওয়াত করে আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ-এর ১০ম শ্রেণির ছাত্র শিহাবুদ্দীন। ইসলামী সংগীত পরিবেশন করে আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ-এর ৭ম শ্রেণির ছাত্র শু‘আইব। উদ্বোধনী ভাষণ পেশ করেন সম্মেলনের সম্মানিত সভাপতি ও আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ-এর পরিচালক ও রাজশাহী শাখার প্রিন্সিপ্যাল শায়খ আব্দুর রাযযাক বিন ইউসুফ।

প্রথম দিন পূর্বনির্ধারিত বিষয়বস্তুসমূহের উপর বক্তব্য পেশ করেন শায়খ আব্দুর রাযযাক বিন ইউসুফ; আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, রাজশাহীর মুহাদ্দিছ শায়খ মোস্তফা মাদানী; ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়ার সহযোগী অধ্যাপক ড. আবুবকর মুহাম্মাদ যাকারিয়া; শায়খ আকরামুযযামান বিন আব্দুস সালাম; মাদরাসা দারুস সুন্নাহ-এর প্রিন্সিপ্যাল শায়খ আব্দুন নূর মাদানী; রাণীবাজার মাদরাসার প্রিন্সিপাল শায়খ সাঈদুর রহমান রিয়াদী; ড. রেজাউল করীম মাদানী; প্রফেসর মুখতার আহমাদ; শায়খ আব্দুল্লাহ বিন আব্দুর রাযযাক; শায়খ আব্দুল মালেক আহমাদ মাদানী; শায়খ আব্দুল মতীন মাদানী; শায়খ গোলাম রব্বানী; শায়খ আব্দুল গনী মাদানী; শায়খ আখতারুযযামান ও শায়খ জসীমুদ্দীন সালাফী প্রমুখ। আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, রাজশাহীর ছাত্রদের মধ্যে বক্তব্য উপস্থাপন করেন কুল্লিয়্যাহ ১ম বর্ষের আব্দুল হাকীম বিন আব্দুল করীম ও আল-আমীন এবং কুল্লিয়্যাহ শেষ বর্ষের মুহাম্মাদ হাবীবুল্লাহ ও মুহাম্মাদ আল-ফিরোজ।

ইসলামী সম্মেলন ২০২০-এর দ্বিতীয় দিন জুম‘আর খুত্ববা প্রদান করেন ইসলামী সম্মেলনের সম্মানিত সভাপতি শায়খ আব্দুর রাযযাক বিন ইউসুফ। বাদ জুম‘আ থেকে আছর পর্যন্ত বিরতি থাকে।

বাদ আছর পবিত্র কুরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে সম্মেলনের কার্যক্রম পুনরায় শুরু হয়। কুরআন তেলাওয়াত করে আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, রাজশাহীর ৭ম শ্রেণির ছাত্র শু‘আইব। এদিন পূর্বনির্ধারিত বিষয়বস্তুসমূহের উপর বক্তব্য পেশ করেন শায়খ আব্দুর রাযযাক বিন ইউসুফ; পিস টিভি বাংলার আলোচক শায়খ সাইফুদ্দীন বেলাল মাদানী; জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক ড. ইমাম হোসাইন; বিশিষ্ট চিন্তাবিদ ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক; ভারত থেকে আগত শায়খ আনোয়ারুল হক ফাইজী; আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, রূপগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জের প্রিন্সিপাল ও মাসিক আল-ইতিছাম-এর সহকারী সম্পাদক শায়খ আব্দুল আলীম ইবনে কাওছার মাদানী; আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, রাজশাহীর শিক্ষক ড. ইমামুদ্দীন বিন আব্দুল বাছীর;  শায়খ আব্দুল্লাহ বিন আব্দুর রাযযাক; বরিশাল সরকারি মডেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক মুহাম্মাদ মুস্তাফা কামাল; সিলেট কিউসেট সেন্টারের পরিচালক ড. মুহাম্মাদ আবু তাহের; শায়খ হাশেম আলী; শায়খ আশরাফুল ইসলাম হাটহাজারী ও শায়খ ইউনুস বিন আহসান প্রমুখ। আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, রাজশাহীর ছাত্রদের মধ্যে বক্তব্য উপস্থাপন করেন কুল্লিয়া শেষ বর্ষের ছাত্র আব্দুল্লাহ রাসেল ও ৪র্থ শ্রেণির ছাত্র ফায়ছাল আহমাদ।

এছাড়াও দু’দিনব্যাপী ইসলামী সম্মেলনে আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ-এর ছাত্ররা আগত শ্রোতাদের উদ্দেশ্যে আরবী ও ইংরেজি ভাষায় মনোজ্ঞ অনুষ্ঠান উপহার দেয়। এছাড়া ছাত্ররা জামি‘আহর প্রধান ফটকে ‘ইসলামী সম্মেলন ২০২০, সফল হোক, আহলান ওয়া সাহলান ইয়া যুয়ূফানাল কেরাম, আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ ডাঙ্গীপাড়া, রাজশাহী’ কারুকার্য করে আগত অতিথিদের স্বাগত জানায়।

সমাপনী ভাষণ : শায়খ আব্দুর রাযযাক বিন ইউসুফ সম্মেলনে আগত দ্বীনী ভাইদের উদ্দেশ্যে সংক্ষিপ্ত সমাপনী ভাষণ দেন। অতঃপর সবাইকে আন্তরিক অভিনন্দন জানিয়ে ও সুস্বাস্থ্য কামনা করে স্ব-স্ব গন্তব্যে ছহীহ-সালামতে পৌঁছে যাওয়ার জন্য প্রার্থনা করে বৈঠক শেষের দু‘আ পাঠ করেন এবং সম্মেলনের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

 

সালাফী কনফারেন্স ২০২০

আল-জামিআহ আস-সালাফিয়্যাহ, রূপগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ ৫ ও ৬ মার্চ, রোজ : বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার :

আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, রূপগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ কর্তৃক আয়োজিত দু’দিন ব্যাপী ‘সালাফী কনফারেন্স-২০২০’ নানা বাধা-বিপত্তি পেরিয়ে বাংলাদেশের অত্যাধুনিক সিটি পূর্বাচলের অদূরে বীরহাটাব-হাটাব, রূপগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জে অবস্থিত আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ ময়দানে সফলভাবে অনুষ্ঠিত হয়। ফালিল্লাহিল হামদ। আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, নারায়ণগঞ্জ ও রাজশাহীর প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক শায়খ আব্দুর রাযযাক বিন ইউসুফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ৪র্থ বার্ষিক সালাফী কনফারেন্সে আশাতীত মানুষের সমাগম হয়। ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, খুলনা, রংপুর ও রাজশাহীসহ বাংলাদেশের প্রতিটি বিভাগের বিভিন্ন জেলা থেকে ভাড়াকৃত বাস, মাইক্রো-বাস, ট্রেন ও লঞ্চসহ বিভিন্ন মাধ্যমে লোকজন সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেন।

১ম দিন বাদ আছর আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, রূপগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ-এর ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র হাফেয মাহবূবুর রহমানের কুরআন তেলাওয়াত ও তার সাথীদের আরবী, বাংলা ও ইংরেজিতে অনুবাদের মাধ্যমে সম্মেলনের কার্যক্রম শুরু হয়। ইসলামী সংগীত পেশ করে আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ-এর ছাত্র মুশফিকুর রহমান ও তার সহশিল্পীরা। উদ্বোধনী ভাষণ পেশ করেন শায়খ আব্দুর রাযযাক বিন ইউসুফ।

ইসলামী সম্মেলনে ১ম দিন পূর্ব নির্ধারিত বিষয়ের উপর গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা পেশ করেন শায়খ আব্দুর রাযযাক বিন ইউসুফ, শায়খ আকরামুযযামান বিন আব্দুস সালাম, জাতীয় বিশ^বিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক শায়খ ড. ইমাম হোসাইন, ড. ইমামুদ্দীন বিন আব্দুল বাছীর, ড. রেজাউল করীম মাদানী, আব্দুল্লাহ বিন আব্দুর রাযযাক, শায়খ মুকাররম বিন মুহসিন মাদানী, শায়খ আব্দুল মালেক আহমাদ মাদানী, বরিশাল সরকারি মডেল কলেজ এর সহকারী অধ্যাপক মুহাম্মাদ মুস্তাফা কামাল, শায়খ তারেক হাসান বিন বেনজির মাদানী, বিশিষ্ট গবেষক ও লেখক আহমাদুল্লাহ বিন আব্দুত তাওয়াব, জনাব আরমান উদ্দীন ও বিশিষ্ট গবেষক শায়খ আযহারুল ইসলাম প্রমুখ। এছাড়া আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, নারায়ণগঞ্জ-এর শিক্ষকগণের মধ্যে শায়খ আব্দুল মতীন মাদানী ও শায়খ আহসান হাবীব মাদানী এবং ছাত্রদের মধ্যে কুল্লিয়্যাহ ১ম বর্ষের মামূনুর রশীদ ও দাখিল ফলপ্রার্থী নাঈম গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য পেশ করেন। এছাড়া আরবী ও ইংরেজিতে বক্তব্য পেশ করেন আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ-এর ৮ম শ্রেণির ছাত্র আব্দুল আযীয।

সালাফী কনফারেন্স ২০২০-এর ২য় দিন বাদ ফজর দারসে কুরআন পেশ করেন আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, রূপগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জের প্রিন্সিপাল ও মাসিক আল-ইতিছাম-এর সহকারী সম্পাদক শায়খ আব্দুল আলীম ইবনে কাওছার মাদানী। সকাল সাড়ে ৯টা থেকে সাড়ে ১০টা পর্যন্ত আল-হুদা শিল্পীগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। এতে আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, রূপগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জের ছাত্র-ছাত্রীরা পৃথক পৃথক পারফরমেন্স করে। আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, রূপগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জের শিক্ষক শায়খ আহসান হাবীব মাদানীর নেতৃত্বে পৃথক দু’টি নাটিকা মঞ্চস্থ হয়। আর সাড়ে ১০টা থেকে জুম‘আ পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হয় মতবিনিময় সভা। দ্বীনী ভাইয়েরা স্বতস্ফূর্তভাবে তাতে অংশগ্রহণ করেন। জুম‘আর খুৎবা পেশ করেন কনফারেন্সের সম্মানিত সভাপতি শায়খ আব্দুর রাযযাক বিন ইউসুফ। বাদ জুম‘আ থেকে আছর পর্যন্ত বিরতি থাকে।

২য় দিন বাদ আছর পবিত্র কুরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে সম্মেলনের কার্যক্রম পুনরায় শুরু হয়। কুরআন তেলাওয়াত করে আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, নারায়ণগঞ্জ-এর ৪র্থ শ্রেণির ছাত্র ওমর ফারূক আর ইসলামী সংগীত পেশ করে ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র মিনারুল ইসলাম নাহিন। এদিন পূর্বনির্ধারিত বিষয়বস্তুসমূহের উপর বক্তব্য পেশ করেন শায়খ আব্দুর রাযযাক বিন ইউসুফ, ড. আবুবকর মুহাম্মাদ যাকারিয়া, ড. মুযাফফর বিন মুহসিন, ড. মুহাম্মাদ মানযূরে ইলাহী, ড. মুহাম্মাদ সাইফুল্লাহ, আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, নারায়ণগঞ্জ-এর প্রিন্সিপ্যাল শায়খ আব্দুল আলীম ইবনে কাওছার মাদানী, প্রফেসর মুখতার আহমাদ, শায়খ আব্দুর নূর মাদানী, শায়খ আব্দুল্লাহ বিন আব্দুর রাযযাক, শায়খ হাশেম আলী, ড. মুহাম্মাদ আশরাফ উদ্দীন, শায়খ আব্দুল্লাহ আল-মাছূম বিন সিরাজুল ইসলাম ও শায়খ ইসরাফীল বিন তমীজুদ্দীন প্রমুখ। আরো বক্তব্য পেশ করেন আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, নারায়ণগঞ্জ-এর ছাত্রগণের মধ্যে থেকে কুল্লিয়্যা ১ম বর্ষের রঈসুদ্দীন, দাখিল ফলপ্রার্থী ইকরাম ও প্রাক্তন ছাত্র আব্দুল ওয়াহেদ। এছাড়া ইংরেজি বক্তব্য পেশ করে আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ-এর ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র ফাহিম ও আরবী বক্তব্য পেশ করে হিফয বিভাগের ছাত্র বাসসাম ইবনে আব্দুল আলীম।

ইসলামী সম্মেলনের বিভিন্ন পর্যায়ে সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন মুহাম্মাদ মুস্তাফা কামাল, শায়খ আব্দুল আলীম ইবনে কাওছার মাদানী, ড. ইমামুদ্দীন বিন আব্দুল বাছীর ও আব্দুল্লাহ বিন আব্দুর রাযযাক।

বিদায়ী ভাষণ : সম্মেলনে আগত দ্বীনী ভাইদের উদ্দেশ্যে সংক্ষিপ্ত বিদায়ী ভাষণ দেন শায়খ আব্দুর রাযযাক বিন ইউসুফ। অতঃপর সবাইকে আন্তরিক অভিনন্দন জানিয়ে ও সুস্বাস্থ্য কামনা করে স্ব-স্ব গন্তব্যে ছহীহ-সালামতে পৌঁছে যাওয়ার জন্য প্রার্থনা করে বৈঠক শেষের দু‘আ পাঠ করেন এবং সম্মেলনের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

 

সমাপনী ও জেডিসি পরীক্ষায় জামিআহর ছাত্র-ছাত্রীদের কৃতিত্ব

(১) আল-জামিআহ আস-সালাফিয়্যাহ, ডাঙ্গীপাড়া, পবা, রাজশাহী :

ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা :

২০১৯ সালের ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, ডাঙ্গীপাড়া, পবা, রাজশাহীর বালক ও বালিকা শাখা মিলে ১০৪ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে ৪৯ জন A+, ৫১ জন A ও ৪ জন A– পেয়ে শতভাগ পাস করেছে। তার মধ্যে ৫ জন ট্যালেন্টপুলে এবং ২০ জন সাধারণ বৃত্তি লাভ করেছে। বালক শাখা থেকে ৩ জন ট্যালেন্টপুলে ও ১১ জন সাধারণ বৃত্তি এবং বালিকা শাখা থেকে ২ জন ট্যালেন্টপুলে ও ৯ জন সাধারণ বৃত্তি পেয়েছে। ফালিল্লাহিল হামদ।

ট্যালেন্টপুলে বৃত্তিপ্রাপ্ত ছাত্র-ছাত্রীরা হলো- আবু সাঈদ, রেজাঊল করীম, ইবরাহীম, আফীফা আক্তার রিমা ও ওমাইয়া।

সাধারণ বৃত্তিপ্রাপ্ত ছাত্র-ছাত্রীরা হলো- সাকিব আল-হাসান, নাঈম আহমাদ নিশান, মাহবূবুর রহমান, শাহাদাত হোসেন, তানভীর ইসলাম, হাসিবুল্লাহ, আব্দুর রাযযাক, শাহাদাত হোসেন, আব্দুল আহাদ, তাসফীক আহমাদ, মাহিন বিন বাদশা, আফীফা আনান তামান্না, লিমা রহমান, সুমাইয়া খাতুন, নুসরাত জাহান, জুবাইদা আক্তার ঐশী, সানজিদা আক্তার সুমী, সানজিদা ঐশী, লুবাবাতুল মাবিয়া ও মারজিয়া আক্তার।

জুনিয়র দাখিল পরীক্ষা (জেডিসি) :

২০১৯ সালের জুনিয়র দাখিল পরীক্ষায় বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, ডাঙ্গীপাড়া, পবা, রাজশাহীর বালক ও বালিকা শাখা মিলে মোট ৬৮ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে ২ জন A+, ৫৪ জন A, ১০ জন A– ও ২ জন ই পেয়ে শতভাগ পাস করেছে। ফালিল্লাহিল হামদ।

বালক শাখার ২৬ জনের মধ্যে ২ জন A+, ২০ জন A, ২ জন A– ও ২ জন ই পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে এবং বালিকা শাখা থেকে ৪২ জনের মধ্যে ৩৪ জন A ও ৮ জন A– পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে।

৬৮ জনের মধ্যে ৫ জন বৃত্তি পেয়েছে। আলহামদুলিল্লাহ! এদের মধ্যে ২ জন ট্যালেন্টপুলে ও ৩ জন সাধারণ বৃত্তি লাভ করেছে। ট্যালেন্টপুলে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা হলো- আব্দুল্লাহ আল-মুজাহিদ ও সারোয়ার আহমেদ। সাধারণ বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা হলো- সাখাওয়াত হোসাইন, তোহরুল ইসলাম ও ছিয়াম উদ্দীন।

(২) আল-জামিআহ আস-সালাফিয়্যাহ, বীরহাটাব-হাটাব, রূপগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ :

ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষা :

২০১৯ সালের ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষায় আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, রূপগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ-এর বালক ও বালিকা শাখা মিলে ৫৩ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেছে। ১০ জন A+, ২৬ জন A এবং বাকী সবাই A– পেয়ে শতভাগ পাস করেছে। তার মধ্যে ১ জন ট্যালেন্টপুলে ও ১১ জন সাধারণ বৃত্তি লাভ করেছে।

ট্যালেন্টপুলে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থী হলো- আফরোজা আক্তার।

সাধারণ বৃত্তিপ্রাপ্ত ছাত্র-ছাত্রীরা হলো- মিনহাজুল ইসলাম নাহিদ, সারোয়ার, মা‘রূফ হাসান ছিফাত, শরাফাত হোসেন, নিরব, তানযীমুল ইসলাম ত্ব-হা, রুবাইয়া কামাল তিথি, তাহসিনা রহমান তিনা, মাইমূনা আক্তার, সপিয়া সানজিদা ও মেহেরুন্নেছা মাতৃ।

জুনিয়র দাখিল পরীক্ষা (জেডিসি) :

২০১৯ সালের জুনিয়র দাখিল পরীক্ষায় বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে আল-জামি‘আহ আস-সালাফিয়্যাহ, বীরহাটাব-হাটাব, রূপগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জের বালক ও বালিকা শাখা মিলে ১৭ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে শতভাগ পাস করেছে। তাদের মধ্যে ১ জন অ+ এবং বাকী ১৬ জন অ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে।

১৭ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৪ জন বৃত্তি পেয়েছে। ফালিল্লাহিল হামদ। এদের মধ্যে ১ জন ট্যালেন্টপুলে এবং ৩ জন সাধারণ বৃত্তি লাভ করেছে।

ট্যালেন্টপুলে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থী হলো- সুমাইয়া রহমান।

সাধারণ বৃত্তিপ্রাপ্ত ছাত্র-ছাত্রীরা হলো- ফাইজুল ইসলাম, ছালেহ আহমেদ নয়ন, সুমাইয়া আক্তার।