দুষ্ট-শিষ্ট চেনা

মুহাম্মাদ আব্দুল মালেক মাহমূদ

শিক্ষক (অবঃ), মনিপুর স্কুল এন্ড কলেজ, মিরপুর, ঢাকা।

হিংস্র পশু শিকারী প্রাণী, সর্ব জীবে চিনে

সবাই দূরে থাকতে জানি, বাঁচতে সাধের প্রাণে।

লুকানো রোগ-জীবাণুর, ক্ষতি থেকে বাঁচতে

খাদ্য পানি ভালো রাখার, প্রচার বহুক্ষেত্রে।

দন্ত ব্রাশ ফেস ওয়াশ, ওযূ গোসল করলে

রোগ ব্যাধি কম হবে নবীর মতো অভ্যাস করলে।

মানুষ ছাড়া অন্য জীব, যারা ক্ষতিকর

বদলায় না চেহারা স্বভাব, চেনা সহজতর।

বহুরূপী বর্ণচোরা মানুষ, চেনা কঠিন হয়

হালচালে রঙীন ফানুস, দিলে শয়তানী রয়।

দুষ্ট লোকের মিষ্ট কথা, মিত্র হয়ে আসে

আশা ভরসা লোভের বার্তা দিয়ে মারে শেষে।

অচেনা সাধু হুযূর থেকে, দূরে থাকা চাই

নতুন বন্ধু সাথি পথিককে, পরীক্ষা করি তাই।

খাবার খেলনার লোভে পড়ে কত শিশু চুরি হয়

পড়ে দুষ্টের খপ্পরে, জান-মান-মাল সবই যায়।

আজব গুজবের হঠাৎ খবরে, সাড়া দিতে নাই

সত্য মিথ্যা যাচাই করে, গ্রহণ করা চাই।

জিদ ও রাগের সাথে, কথা ও কাজ নয়

ঠা-ণ্ডা মাথায় শান্তচিত্তে, চিন্তা করতে হয়।

ইচ্ছা অনিচ্ছায় কামারশালার, কাছে কেহ বসলো

ধুয়া ও ধুলিকণার ময়লা গায়ে লাগলো,

আতর ও খোশবূর দোকানে যে জন গিয়ে বসে

অজান্তে তার দেহমনে, পুলক জাগে সুবাসে।