ফ্রান্সে দেড় বছরে ২২টি মসজিদ বন্ধ

ফ্রান্সের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের হিসাব অনুসারে, গত দেড় বছরে সেখানে ২২টি মসজিদ বন্ধ করা হয়েছে। এই সংখ্যা তার আগের তিন বছরে মোট মসজিদ বন্ধের তুলনায় অনেক বেশি। ফ্রান্সে প্রায় আড়াই হাজার মসজিদ রয়েছে। এর মধ্যে কথিত ‘বিচ্ছিন্নতাবাদী’ মতাদর্শ প্রচার সন্দেহে ৯০টি মসজিদে তদন্ত চালানো হয়েছে বলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে। ইউরোপে সবচেয়ে বেশি মুসলিম বাস করেন এমন দেশগুলোর মধ্যে ফ্রান্স অন্যতম। কিন্তু সেখানকার মুসলিমরা বলছেন, দেশটি ক্রমে মুসলিমদের জন্য বৈরী হয়ে উঠছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের হিসাব অনুসারে, ২০২১ সালে মুসলিমবিরোধী বৈষম্যমূলক আচরণ বেড়েছে। আর অন্যান্য ধর্মের ক্ষেত্রে সংখ্যাটা কমেছে। মসজিদ বন্ধ করার প্রমাণ হিসেবে সরকারের পক্ষ থেকে ২০ পাতার একটি নথি (যা ‘হোয়াইট মেমো’ নামে পরিচিত) আদালতে উপস্থাপন করা হয়। তাতে বলা হয়েছে, মসজিদের ধর্মপ্রচারকরা সশস্ত্র জিহাদের প্রশংসা করেছেন ও মুছল্লীরা সহিংসতার ডাক দিচ্ছেন বলে শোনা গেছে। আরো অভিযোগ করা হয়, মসজিদে বিভিন্ন মৌলবাদী বই রাখা হয়, যেখানে মৌলবাদী বই হিসেবে দেখানো হয়েছে ‘রিয়াদুছ ছালেহীন’ এর মতো বিশ্বনন্দিত হাদীছ গ্রন্থকে, অথচ ১৩শ শতকের এই গ্রন্থটি ফ্রান্সের জাতীয় গ্রন্থাগারেও সযত্নে রাখা আছে।