বাংলাদেশ সংবাদ


২০২০ সালে রেমিট্যান্স প্রবাহে বিশ্বে বাংলাদেশ অষ্টম : বিশ্ব ব্যাংক

প্রবাসী বাংলাদেশিদের পাঠানো অর্থ বা রেমিট্যান্স প্রবাহের ক্ষেত্রে ২০২০ সালে বিশ্বের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান অষ্টম হবে বলে জানিয়েছে বিশ্বব্যাংক। বিশ্বব্যাংকের ওয়াশিংটন সদর দপ্তর থেকে প্রকাশিত ‘কোভিড-১৯ ক্রাইসিস থ্রো মাইগ্রেশন লেন্স’ শীর্ষক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। প্রতিবেদনের প্রক্ষেপণ অনুযায়ী এ বছর করোনার মধ্যেও দক্ষিণ এশিয়ার দুটি দেশের রেমিট্যান্স বাড়বে। যার মধ্যে বাংলাদেশের বাড়বে ৮ শতাংশ। মূলত ভ্রমণ নিয়ন্ত্রণের কারণে অপ্রাতিষ্ঠানিক থেকে প্রাতিষ্ঠানিক চ্যানেলে রেমিট্যান্স বৃদ্ধি পাওয়ায় কোভিডের মধ্যেও রেমিট্যান্স বাড়বে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০২০ সালে বাংলাদেশে রেমিট্যান্স আসবে ২০ বিলিয়ন ডলার। পরিমাণের দিক থেকে শীর্ষ ১০ দেশের মধ্যে বাংলাদেশ অষ্টম। প্রথমে রয়েছে ভারত ৭৬ বিলিয়ন ডলার, দ্বিতীয়তে চীন ৬০ বিলিয়ন ডলার এবং তৃতীয় স্থানে রয়েছে মেক্সিকো ৪১ বিলিয়ন ডলার। শীর্ষ ১০ দেশের মধ্যে বাংলাদেশের আগে দক্ষিণ এশিয়ার আরেকটি দেশ রয়েছে। সেটি হলো ষষ্ঠ অবস্থানে পাকিস্তান। দেশটির রেমিট্যান্সের পরিমাণ হতে পারে ২৪ বিলিয়ন ডলার। ভারত পরিমাণের দিক থেকে শীর্ষে থাকলেও এ বছর দেশটির রেমিট্যান্স ৯ শতাংশ কমবে। আর সামগ্রিকভাবে দক্ষিণ এশিয়ার রেমিট্যান্স কমবে ৪ শতাংশ। অবশ্য দক্ষিণ এশিয়ার আরেকটি দেশ পাকিস্তানের ৯ শতাংশ বাড়বে।

হিজড়া জনগোষ্ঠীদের প্রথম মাদরাসা চালু

রাজধানীতে তৃতীয় লিঙ্গ (হিজড়া) জনগোষ্ঠীদের জন্য দেশে প্রথমবারের মতো একটি মাদরাসা চালু করা হয়েছে। মাদরাসাটির প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক মুফতী আব্দুর রহমান আজাদের এই মহতী উদ্যোগের ভূয়সি প্রসংশা করেছেন সব শ্রেণি-পেশার মানুষ। যে সমাজ তৃতীয় লিঙ্গের মানুষগুলোকে অলক্ষুণে মনে করে নাম দিয়েছে হিজড়া, যে সমাজে তারা চাঁদাবাজি, ভিক্ষাবৃত্তি, যৌনতা, মাদক পাচারের মতো অসামাজিক কার্যক্রমে জড়িত থেকে সমাজ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে আলাদা জীবনযাপন করে আসছে কয়েক শতাব্দী ধরে, সেই সমাজে তাদেরকে এভাবে মূল স্রোতধারায় এনে পুনর্বাসনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে, যা প্রশংসার দাবিদার। আর এভাবে সমাজের সকল অবহেলিত, সুবিধাবঞ্চিতদেরকে পুনর্বাসিত করা দরকার।