মুসলিম বিশ্ব


ফিলিস্তীনী ভূখণ্ডে আরও ৪টি বসতি স্থাপনের অনুমোদন ইসরাঈলের

অধিকৃত ফিলিস্তীনী পশ্চিম তীরে আরও চারটি অবৈধ ইয়াহূদী বসতি নির্মাণের প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে তেল আবিব। এছাড়া পবিত্র জেরুজালেম শহরের উত্তরে আরও নয় হাজার ইউনিট বসতি নির্মাণের পরিকল্পনা নিয়েছে। ইসরাঈল এবং ফিলিস্তীনের গণমাধ্যম এ খবর দিয়েছে। ৬ ডিসেম্বর ২০২০, রবিবার ইসরাঈলের পরিবহনমন্ত্রী মিরি রেজেভ পশ্চিম তীরে নতুন চারটি বসতি নির্মাণের প্রকল্প অনুমোদন দেন। ইসরাঈলের চ্যানেল ইলেভেনের বরাত দিয়ে ফিলিস্তীনের মা‘আন সংবাদ সংস্থা জানিয়েছে, জেরুজালেম শহরের পৌরসভা সেখানে ইয়াহূদীদের জন্য নয় হাজার বসতি নির্মাণের প্রক্রিয়া শুরু করেছে। সূত্র অনুযায়ী, জেরুজালেম শহরের পরিত্যক্ত বিমানবন্দরের কাছে কয়েক হাজার ইউনিট বসতি নির্মাণ করা হবে। ১৯৬৭ সালের আরব-ইসরাঈল যুদ্ধের সময় ওই এলাকা দখল করে নেয় ইসরাঈল। কয়েক বছর আগে জেরুজালেম শহরের এ নির্মাণ প্রকল্প নিয়ে পরিকল্পনা করা হয়, কিন্তু আন্তর্জাতিক রাজনৈতিক চাপের কারণে কয়েক বার তা স্থগিত করে তেল আবিব।

 

আমি যীশুকে খুঁজতে গিয়ে খুঁজে পেয়েছি মুহাম্মাদ (ছাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম)-কে : লরেন বুথ

২০১০ সালে ইসলাম গ্রহণ করেন লন্ডনের প্রখ্যাত লেখক ও সাংবাদিক ধর্মান্তরিত মুসলিম লরেন বুথ। তিনি বলেন, আমি সেখানে যীশুকে খুঁজতে গিয়েছি, কিন্তু মানুষের আচরণের মধ্যে আমি মুহাম্মাদ a-কে খুঁজে পেয়েছি। তিনি তার জীবনের বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরেছেন তার আত্মজীবনী ভিত্তিক বই ‘ফাইন্ডিং পিস ইন দ্য হলি ল্যান্ড’ এ। বিভিন্ন প্রশ্ন উত্থাপন এবং তার উত্তরও দিয়েছেন। এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আমি যীশুর উপর থেকে বিশ্বাস হারিয়ে ফেলিনি; বরং ফিলিস্তীন সফরের সময় তা অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। সেখানে এমন এক সত্তা খুঁজে পেয়েছি, যা এর আগে সে সম্পর্কে আমি কিছুই জানতাম না। আমি মধ্যপ্রাচ্য সম্পর্কে জানতাম না। কারা আরব ভূমিগুলো দখল করে আছে, সে সম্পর্কেও কিছু জানতাম না। আমি আরবদের সম্পর্কে ভীত ছিলাম। ফিলিস্তীনীদের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে লেখালেখি করতে চাওয়ার কথা জানান লরেন বুথ, যার মাধ্যমে তাদের বার্তা সারা বিশ্বের কাছে পৌঁছায়।