স্মার্ট মাস্ক ও গগলস উদ্ভাবন মরক্কোর কিশোরের

লকডাউনের ছুটিতে করোনা প্রতিরোধক ফেস মাস্ক ও গগলস তৈরি করেছে মরক্কোর মুহাম্মাদ বিলাল হামুতি নামের এক কিশোর। ১১ বছর বয়সী খুদে আবিষ্কারক মুহাম্মাদ বিলাল হামুতি বেশির ভাগ সময় বিভিন্ন ইলেকট্রিক প্রকল্প উদ্ভাবন ও তা বাস্তবায়নের পেছনে ব্যয় করে। এই বিশেষ ডিভাইসটির কাজ হলো যদি গগলস পরিধানকারী থেকে অন্যের দূরত্ব এক মিটারের চেয়ে কম হয়, তখন তাতে সতর্ক সংকেত বাজতে শুরু করবে। তার উদ্ভাবিত মাস্কে বিশেষ সেন্সর বসানো হয়েছে। ফলে কেউ যদি মাস্ক পরিধানকারীর এক থেকে দুই মিটারের মধ্যে চলে আসে তবে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নাক ও মুখ ঢেকে যাবে। ঘরের বাইরে বিশেষত উষ্ণ আবহাওয়ায় যারা কাজ করে, তাদের কথা চিন্তা করে এই মাস্ক তৈরি করা হয়েছে।

 

হাজীদের সুরক্ষায় স্মার্ট ব্রেসলেট ব্যবহার

প্রথমবারের মতো এবারের সীমিত হজ্জে সব হাজীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ব্যবহার করা হয়েছে ‘টেটমেন’ নামের অত্যাধুনিক ব্রেসলেট। এবারের নির্বাচিত হাজীদের গতিবিধি কঠোর নযরদারিতে রাখতে এমন অভিনব পদ্ধতি অবলম্বন করা হয়। ব্রেসলেটের মাধ্যমে হাজীদের সার্বিক কার্যক্রম ও স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টি হজ্জ কর্তৃপক্ষ নযরদারি করে। ব্রেসলেটটি ব্লুটুথ প্রযুক্তির সাহায্যে হাজীদের মোবাইল ফোনে সংযুক্ত। একাধারে ৩০ দিন পর্যন্ত চার্জবিহীন ব্যবহার করা যায় এটি। ডিভাইসটি হাতের কব্জিতে লাগানো থাকে। ব্রেসলেটের সংযোগ বিচ্ছিন্ন হলে কিংবা তা বিচ্ছিন্ন করার চেষ্টা করা হলে কর্তৃপক্ষ সরাসরি তা জানতে পারে। এ ছাড়াও হজ্জের পর হোম কোয়ারেন্টিনে থাকা নিশ্চিত করা যাবে এ ব্রেসলেটটির সাহায্যে। করোনা মহামারি রোধে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করা হয়েছে এবারের হজ্জে। পবিত্র কা‘বা ত্বাওয়াফ, সাঈ ও অন্যান্য স্থানে নিরাপদ দূরত্ব ও অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করা হয়।